শিরোনামঃ
রোহিঙ্গাদের ৮৫% শিশুই বিভিন্ন জটিল রোগে আক্রান্তসেই ‘পুলিশের ভিক্ষুক মায়ে’র দায়িত্ব নিতে চান এসআই বশিরআজ শুভ মহালয়া : চণ্ডীপাঠে দেবী দুর্গাকে আবাহনআঞ্চলিক বৈশিষ্ট্যতায় জনস্রোতে মিশে যাচ্ছে রোহিঙ্গারাকোন সতর্কবার্তায় আমরা ভীত নই –সুচিরোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে সহিংসতা বন্ধে ব্রিটেন-ফ্রান্সের আহবানরোহিঙ্গাদের দূদর্শার কারণ আরসা বা আল ইয়াকিনবাংলাদেশকে সংঘর্ষের দিকে নিয়ে যাচ্ছে মিয়ানমাররোহিঙ্গাদের পাশে দাঁড়িয়েছে আমার দেশের মানুষ —প্রধানমন্ত্রীরোহিঙ্গারা পাহাড় কাটায় অপূরণীয় ক্ষতিতে কক্সবাজারদেবী দুর্গার আগমনে ব্যস্ত কক্সবাজারের মৃৎ শিল্পীরাপিতৃপক্ষের অবসানে দেবীপক্ষের শুভ সূচনাজেলা হিন্দু পরিষদের সম্পাদকের মাতার মৃত্যুতে শোকনতুন অফিস বাজারে সাব ইজারাদারদের দৌরাত্ম ॥ প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনাপেকুয়ায় গাঁজাসহ নারী আটক

নাসিরের ১৫০ রানের আক্ষেপ

41dba47a0b2d6212cf72258f2341fe69-59aea2f00b6af.jpg
সাগরকন্ঠ ডটকম ক্রীড়া ডেস্ক :
বাংলাদেশ দলের প্রতিনিধি হয়ে আজ কে সংবাদ সম্মেলনে আসেন, সাংবাদিকদের মধ্যে সেটি নিয়ে দেখা গেল মৃদু কৌতূহল । চট্টগ্রাম টেস্টের দ্বিতীয় দিনটা অস্ট্রেলিয়া যেভাবে নিজেদের করে নিয়েছে, বাংলাদেশ দলে তো ‘দিনের মুখ’ পাওয়াই কঠিন! শেষ পর্যন্ত সংবাদ সম্মেলনে এলেন নাসির হোসেন।

দিনটা অবশ্য বাংলাদেশেরও হতে পারত। সেটি হয়নি দুটি দারুণ সুযোগ হাতছাড়া হওয়ায়। ৩৯তম ওভারে তাইজুল ইসলামের বলে শর্ট লেগে মুমিনুল হকে ফেলে দেওয়া ক্যাচ আর ৫৭তম ওভারে মেহেদী হাসান মিরাজের নিচু হয়ে আসা বলে মুশফিকুর রহিমের স্টাম্পিংয়ের সুযোগ হাতছাড়া —দুবার কুড়িয়ে পাওয়া সুযোগে ডেভিড ওয়ার্নার দিন শেষে অপরাজিত ৮৮ রানে।
দুটি ভুলকে অবশ্য বড় করে দেখতে চাইলেন নাসির, ‘ধরলে তো অবশ্যই অন্যরকম হতে পারত। যদি দেখেন, ক্যাচটা কিন্তু ছিল ৫০-৫০। ক্যাচও বলতে পারবেন না। অনেক কঠিন। আর স্টাম্পিংয়ের কথা বলব, বলটা একেবারে নিচু হয়ে এসেছে। মনে হয় না এটা ফুল চান্স, ৫০-৫০ ছিল। যদি করতে পারত ভালো হতো।’
ক্যাচ-স্টাম্পিংয়ের চেয়ে নাসিরকে পোড়াচ্ছে নিজেদের ব্যাটিং। প্রথম দিনে ৬ উইকেটে ২৫৩ রান নিয়ে খেলতে নামা বাংলাদেশ আজ অলআউট ৩০৫ রানে। চট্টগ্রামের উইকেটে অন্তত ১৫০ রানের ঘাটতি দেখছেন নাসির, ‘ব্যক্তিগতভাবে মনে করি এই উইকেটে আমরা ১০০-১৫০ রান কম করেছি। অন্তত ৪০০-৪৫০ রান করা উচিত ছিল আমাদের।’
প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশ এখনো ৮০ রানে এগিয়ে থাকলেও নাসির স্বীকার করলেন, দ্বিতীয় দিনে অস্ট্রেলিয়ার চেয়ে তাঁরা ঢের পিছিয়ে, ‘এটা সত্যি আমরা একটু ব্যাকফুটে আছি। টেস্ট ক্রিকেটে এক-দেড় ঘণ্টায় খেলার অনেক কিছু বদলে যায়। আমরা সেই আশায় আছি। মনে হয় না আজ বোলাররা খারাপ বোলিং করেছে। ওয়ার্নার খুব ধীরে খেলেছে। তার মানে আমরা খারাপ বোলিং করিনি। উইকেটই শুধু পড়েনি।’
টেস্টের রং বদলে যেতে পারে যেকোনো সময়। নাসিরের চাওয়া, সেই সময়টা কাল আসবে দ্রুতই।

PinIt
Top