শিরোনামঃ
রোহিঙ্গাদের ৮৫% শিশুই বিভিন্ন জটিল রোগে আক্রান্তসেই ‘পুলিশের ভিক্ষুক মায়ে’র দায়িত্ব নিতে চান এসআই বশিরআজ শুভ মহালয়া : চণ্ডীপাঠে দেবী দুর্গাকে আবাহনআঞ্চলিক বৈশিষ্ট্যতায় জনস্রোতে মিশে যাচ্ছে রোহিঙ্গারাকোন সতর্কবার্তায় আমরা ভীত নই –সুচিরোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে সহিংসতা বন্ধে ব্রিটেন-ফ্রান্সের আহবানরোহিঙ্গাদের দূদর্শার কারণ আরসা বা আল ইয়াকিনবাংলাদেশকে সংঘর্ষের দিকে নিয়ে যাচ্ছে মিয়ানমাররোহিঙ্গাদের পাশে দাঁড়িয়েছে আমার দেশের মানুষ —প্রধানমন্ত্রীরোহিঙ্গারা পাহাড় কাটায় অপূরণীয় ক্ষতিতে কক্সবাজারদেবী দুর্গার আগমনে ব্যস্ত কক্সবাজারের মৃৎ শিল্পীরাপিতৃপক্ষের অবসানে দেবীপক্ষের শুভ সূচনাজেলা হিন্দু পরিষদের সম্পাদকের মাতার মৃত্যুতে শোকনতুন অফিস বাজারে সাব ইজারাদারদের দৌরাত্ম ॥ প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনাপেকুয়ায় গাঁজাসহ নারী আটক

টেকনাফে মডেল মসজিদ স্থাপনে কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা

Taknaf-mosque-12.09.2017.jpg

দলিল আহমদ ফারুকী, টেকনাফঃ
কক্সবাজারের সীমান্ত উপজেলা টেকনাফে একটি মডেল মসজিদ স্থাপন নিয়ে দু‘পক্ষের পাশাপাশি খোদ দলীয় নেতা-কর্মীদের মধ্যে রশিটানাটানি চলছে। স্থানীয় জনসাধারণ এ ব্যাপারে সরকারের উচ্চ মহলের দ্রুত হস্তক্ষেপ করেছেন। সরকার প্রতি উপজেলায় একটি মডেল মসজিদ ও সাংস্কৃতিক কেন্দ্র স্থাপন স্থাপনের ঘোষণা দেন।
অনুসন্ধানে জানা যায়, ২০১০ সালে সরকার দেশের প্রত্যেক উপজেলায় ১টি করে মডেল মসজিদ ও সাংস্কৃতিক কেন্দ্র স্থাপনের জন্য উদ্যোগ নেন। এলক্ষ্যে স্থান নির্ধারণের নির্দেশ দেয়ার পর পরই সংশ্লিষ্টরা এলাকা পরির্দশন করেন। মডেল মসজিদ স্থাপনের জন্য স্থানীয় একদানবীর জায়গা দানের আগ্রহ প্রকাশ করেন।
সুত্রে আরো জানা যায়, টেকনাফ সদরের লেংগুরবিল মহিউচ্ছুন্নাহ বালিকা মাদ্রাসা সংলগ্ন স্থানে স্থানীয় মরহুম নজির আহমদ সিকদার কর্তৃক ওই মডেল মসজিদ স্থাপনের জন্য ২০ শতক জমি বিনামূল্যে (বিএস দাগ ১০৬৩০) দানপত্র মুলে রেজিষ্ট্রি করে দেন। অতপর মডেল মসজিদের নামে নামজারীও চূড়ান্ত হয়।
মসজিদ স্থাপনে গ্রহণযোগ্যতা ও মহাসড়ক সংলগ্ন হওয়ায় স্থানীয় এমপি আবদুর রহমান বদি ও টেকনাফ উপজেলা প্রশাসনের সুপারিশ সহকারে প্রস্তাবটি তৎকালীন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আ.ন.ম নাজিম উদ্দিন কক্সবাজার জেলা প্রশাসক গিয়াস উদ্দিন আহমদ ও ইফার ডিডি আহমদ মিয়াজীর সমন্বয়ে জেলা কমিটির প্রস্তাবটি ধর্ম মন্ত্রণালয়ে প্রস্তাব প্রেরণ করা হয়।
স্থানীয়রা অভিযোগ করেন, হঠাৎ স্থানীয় এমপি এই সিদ্ধান্ত থেকে সরে টেকনাফ সীমান্তবর্তী বিজিবির বিওপি ফাঁড়ীর পার্শ্ববর্তী স্থানে পৃথক ১টি মডেল মসজিদের প্রস্তাবনা গত গত ৮ আগষ্ট টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কর্তৃক কক্সবাজার জেলা প্রশাসকের কাছে প্রেরণ করেন। এখবরটি এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে স্থানীয় জনসাধারণ ও আওয়ামী লীগ দলীয় নেতা-কর্মীদের মধ্যে ক্ষোভ ও উদ্বেগ সৃষ্টি হয়। মসজিদ নিয়ে রশি টানাটানির ফলে দীর্ঘ বছর ধরে এটি এটির নির্মাণ কাজ শুরু করা যাচ্ছে না।
এদিকে, এ ব্যাপারে গত ১৫ আগস্ট উপজেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত টেকনাফ স্টেশনস্থ হোটেল মিল্কি রিসোর্টের শোকসভা ও সমাবেশে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও সাবেক এমপি অধ্যাপক মোঃ আলী উক্ত প্রস্তাবটি এমপির নিজ স্বার্থে করেছেন বলে দাবী করেন।
উক্ত প্রস্তাবটি দ্রুত বাতিল করে পূর্বের প্রস্তাবিত স্থানে মডেল মসজিদ ও সাংস্কৃতিক কেন্দ্র স্থাপনে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন এই াওয়ামী লীগ সভাপতি ও সাবেক এমপি অধ্যাপক মোঃ আলী । এব্যাপারে উখিয়া-টেকনাফ সংসদ সদস্য আবদুর রহমান বদির বক্তব্য নেওয়ার চেষ্টা করেও পাওয়া যায়নি

PinIt
Top