শিরোনামঃ
কক্সবাজার শহরের একই পরিবারের চারজনের আত্মহত্যাখুনিয়াপালংয়ের সাবেক মেম্বার মোহাম্মদ আলম আর নেইকুমিল্লার বুড়িচং র‌্যাব-৭’র অভিযানে ফেন্সিডিলসহ আটক-১উখিয়ায় র‌্যাব-৭’র অভিযানে অস্ত্রসহ আটক- ২ফেনীতে র‌্যাব-৭’র অভিযান অপহৃত উদ্ধার, আটক- ২বদরখালীর পুকুরে লাশ, রহস্য কী জনমনে প্রশ্ন?পেকুয়ার কেপিএলের ১২তম ম্যাচে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন ড্রাগন্সবদরখালী নৌ পুলিশের অভিযানে কারেন্ট জাল উদ্ধারপেকুয়ায় বালি পরিবহনে বিলুপ্তির পথে সোনাইছড়ি সড়কপেকুয়ায় উত্তপ্ত পরিস্থিতিতে বৈঠক ডেকেছে আওয়ামীলীগরামুতে বসত বাড়ীতে আগুন ও মালমাল লুটপাটচট্টগ্রাম আ’লীগ সভাপতির সাথে পরিবহন শ্রমিকলীগ নেতৃবৃন্দের সাক্ষাতবঙ্গবন্ধু কন্যার সাহসী নেতৃত্বে উন্নয়নের মহাসড়কে আজ বাংলাদেশপেকুয়ায় সংঘর্ষের ঘটনায় আসামী আওয়ামীলীগ কর্মীলাইভ ফিস ফ্রাই খেতে কক্সবাজারে পর্যটকদের ভীর

মানবিক কারণে রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেয়া হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী

untitled-1-86356.jpg
উখিয়া প্রতিনিধি :
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, মানবিক কারণে রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেয়া হয়েছে। মিয়ানমারকে তাদের নাগরিকদের ফেরত নেয়ার আহ্বানও জানান প্রধানমন্ত্রী। ১২ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১১টায় উখিয়ার কুতুপালং শরণার্থী শিবিরে পৌঁছেন তিনি। কক্সবাজারের উখিয়ায় শরণার্থী শিবির পরিদর্শন শেষে সমাবেশে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।
প্রধানমন্ত্রী জানান, রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে মিয়ানমারের ওপর আন্তর্জাতিক চাপ বাড়াতে কাজ করছে সরকার। এ ব্যাপারে আন্তর্জাতিক সংস্থা ও সম্প্রদায়ের প্রতি ভূমিকা রাখারও আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, রোহিঙ্গারা যতদিন নিজেদের দেশে ফিরতে না পারবে, ততদিন বাংলাদেশ তাদের পাশে থাকবে। ত্রাণ বিতরণের অজুহাতে কেউ যাতে নিজেদের আখের গোছাতে না পারে, সেদিকে লক্ষ্য রাখার নির্দেশও দেন প্রধানমন্ত্রী। বলেন, মানবিক দিক বিবেচনায় রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেয়া হয়েছে।
আবেগাপ্লুত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রোহিঙ্গাদের প্রতি মিয়ানমার সরকারের অত্যাচার ও নির্দয় আচরণের কঠোর সমালোচনা করেন। পরে রোহিঙ্গাদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করেন প্রধানমন্ত্রী। শেখ হাসিনার সঙ্গে ছিলেন তার ছোট বোন শেখ রেহানা, আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থার কর্মকর্তা পেপ্পি সিদ্দিক ছাড়াও, সরকারের একাধিক মন্ত্রী।
এর আগে সকাল ১০টায় কক্সবাজার বিমানবন্দরে পৌঁছেন প্রধানমন্ত্রী। সেখান থেকে মেরিন ড্রাইভ সড়কপথে উখিয়ার উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
প্রধানমন্ত্রীর এ পরিদর্শনকে কেন্দ্র করে ইতোমধ্যে সব ধরণের প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে স্থানীয় প্রশাসন। নেয়া হয়েছে বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা। ত্রাণ গ্রহণ করতে এরইমধ্যে সেখানে শরণার্থী রোহিঙ্গারা সমবেত হয়েছে।
গত ২৫ আগষ্ট থেকে মিয়ানমারে রাখাইন প্রদেশে সেনাবাহিনী দমন-নিপীড়ন শুরু করলে রোহিঙ্গা বাংলাদেশ প্রবেশ করে। যার সংখ্যা বর্তমানে তিন লাখের বেশি ।
PinIt
Top