শিরোনামঃ
পেকুয়ায় গ্রামের বাড়িতে নিয়ে আসা হল নিহত মানিকের মরদেহমহেশখালীতে র‌্যাবের সাথে বন্দুকযুদ্ধে শীর্ষ সন্ত্রাসী জাম্বু নিহত, অস্ত্র উদ্ধারসাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির স্বার্থে রংপুরের প্রকৃত ঘটনার উদঘাটন করতে হবে–অধ্যাপক চন্দনদৈনিক পূর্বকোণ সম্পাদকের মৃত্যুতে শোকরামুতে অপহৃত যুবক রুবেল দশ ঘন্টার পর উদ্বারভূমিদস্যুদের খুঁটির জোর কোথায়? কালারমারছড়া-শাপলাপুর সড়কে বালি লুট থামানো যাচ্ছেনা!ধম্মকায়া ফাউন্ডেশনের সাথে বৌদ্ধ উন্নয়ন সংস্থার মতবিনিময়সংবাদপত্রের অবাধ মত প্রকাশে শেখ হাসিনার সরকার কখনো হস্তক্ষেপ করেনিপেকুয়ায় জমির ফসল লুটপেকুয়ায় পৃথক সড়ক দূর্ঘটনায় পরীক্ষার্থীসহ আহত-৭পেকুয়ায় অগ্নিকান্ডে আরবশাহ বাজারে ৬ টি দোকান ভস্মীভূতকক্সবাজারে মোবাইল কোর্টের অভিযানে টমটম আটকসন্ত্রাসী কর্তৃক বন্ধ করা দোকানের তালা খুলেছে মালিকরাচকরিয়ায় ফার্মেসিতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানকক্সবাজার শংকরমঠ ও মিশনের সভা অনুষ্ঠিত

রোহিঙ্গাদের বায়োমেট্রিক নিবন্ধন শুরু

1234.jpg

রোহিঙ্গাদের বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে নিবন্ধন শেষে নিবন্ধন কার্ড প্রদান করছেন সেনা কর্মকর্তা।

উখিয়া প্রতিনিধি :
মাত্র ১২ জন রোহিঙ্গাকে তালিকাভুক্ত করে শেষ হয়েছে মিয়ানমার থেকে আসা শরণার্থীদের বায়োমেট্রিক নিবন্ধনের প্রথম দিন। কর্মকর্তারা বলছেন, প্রথমদিন একটি বুথ দিয়ে কাজ শুরু হলেও, পর্যায়ক্রমে এর সংখ্যা বাড়ানো হবে। নিবন্ধন না করলে কোনো ধরণের মানবিক সহায়তা পাবেন না কেউ জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।
সোমবার সকাল থেকে কাজ শুরুর কথা থাকলেও রোহিঙ্গাদের বায়োমেট্টিক নিবন্ধন শুরু হয় রাত পৌনে নয়টায়। রাবেয়া খাতুন নামের এক নারীর তথ্য সংগ্রহের মধ্য দিয়ে শুরু হয় কার্যক্রম। রাত দশটা পর্যন্ত চলা তালিকা তৈরির কাজে সাড়া দেন ১২ জন রোহিঙ্গা।
প্রাথমিকভাবে একটি বুথে কাজ শুরু হয়েছে। আজ বিকাল থেকে পর্যায়ক্রমে আরও ১৬টি বুথ স্থাপন করা হবে। এসব বুথে রোহিঙ্গাদের ছবি, আঙ্গুলের ছাপ, নাম-পরিচয় এবং মিয়ানমারের বসতির ঠিকানা সংগ্রহ করা হবে।
নিবন্ধনের বাইরে যাতে কেউ না থাকে, সে লক্ষ্যে আশ্রয়কেন্দ্রের জন্য নির্ধারিত জায়গায় নিয়ে যাওয়া হচ্ছে রোহিঙ্গাদের। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলছেন, নিবন্ধন না করলে, সহায়তা পাবেন না কেউ।
জাতিসংঘসহ বিভিন্ন সংস্থা বলছে, নতুন করে বাংলাদেশে এসেছে প্রায় তিন লাখ রোহিঙ্গা। আগে বিভিন্ন সময় এসেছে আট লাখ রোহিঙ্গা। তাদের নিবন্ধন শেষ হতে কতদিন লাগবে তা নিশ্চিত করে বলতে পারছেন না প্রশাসনের কর্মকর্তারা।
PinIt
Top