শিরোনামঃ
পেকুয়ায় গ্রামের বাড়িতে নিয়ে আসা হল নিহত মানিকের মরদেহমহেশখালীতে র‌্যাবের সাথে বন্দুকযুদ্ধে শীর্ষ সন্ত্রাসী জাম্বু নিহত, অস্ত্র উদ্ধারসাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির স্বার্থে রংপুরের প্রকৃত ঘটনার উদঘাটন করতে হবে–অধ্যাপক চন্দনদৈনিক পূর্বকোণ সম্পাদকের মৃত্যুতে শোকরামুতে অপহৃত যুবক রুবেল দশ ঘন্টার পর উদ্বারভূমিদস্যুদের খুঁটির জোর কোথায়? কালারমারছড়া-শাপলাপুর সড়কে বালি লুট থামানো যাচ্ছেনা!ধম্মকায়া ফাউন্ডেশনের সাথে বৌদ্ধ উন্নয়ন সংস্থার মতবিনিময়সংবাদপত্রের অবাধ মত প্রকাশে শেখ হাসিনার সরকার কখনো হস্তক্ষেপ করেনিপেকুয়ায় জমির ফসল লুটপেকুয়ায় পৃথক সড়ক দূর্ঘটনায় পরীক্ষার্থীসহ আহত-৭পেকুয়ায় অগ্নিকান্ডে আরবশাহ বাজারে ৬ টি দোকান ভস্মীভূতকক্সবাজারে মোবাইল কোর্টের অভিযানে টমটম আটকসন্ত্রাসী কর্তৃক বন্ধ করা দোকানের তালা খুলেছে মালিকরাচকরিয়ায় ফার্মেসিতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানকক্সবাজার শংকরমঠ ও মিশনের সভা অনুষ্ঠিত

চরম স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে রোহিঙ্গা শিশুরা

21192486_1880368558942457_790215498407401205_n.jpg
সাগরকণ্ঠ ডটকম :

মিয়ানমারের সরকারী বাহিনীর নির্যাতনে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গা শরণার্থীদের মধ্যে লক্ষাধিক শিশু রয়েছে। যারা বর্তমানে অবস্থান করছে, টেকনাফ, উখিয়ার বিভিন্ন শরণার্থী ক্যাম্প ও সড়কে। তারা সহিংসতা থেকে প্রাণে বাঁচলেও; অপুষ্টিসহ নানা রোগ-ব্যাধিতে আক্রান্ত হয়ে চরম স্বাস্থ্য ঝুঁকির মধ্যে পড়েছে তারা। রাখাইনের নৃশংসতার শিকার এই শিশুদের অনেকেই ভুগছে, মানসিক সমস্যায়। শরণার্থী ক্যাম্প কিংবা উখিয়া-টেকনাফের পথে-প্রান্তরে আপাতত মিলেছে এসব রোহিঙ্গাদের আশ্রয়। কিন্তু ভবিষ্যতের ঘোর অন্ধকারে দিন দিন নিমজ্জিত হয়ে পড়ছে অসহায় এসব শিশুরা।

সামনের দিনগুলো কিভাবে কাটবে সেই শঙ্কার পাশাপাশি, নানা রকমের স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে পড়ছে বেশিরভাগ শিশু। কারণ দীর্ঘপথ পাড়ি দিতে গিয়ে তারা আক্রান্ত হয়েছে বিভিন্ন রোগ ব্যাধিতে। পাশাপাশি প্রয়োজনীয় খাবারের কষ্ট আর চিকিৎসা সেবার সংকটতো ছিলোই।

উখিয়ার শরণার্থী ক্যাম্পে কাজ করা বেসরকারি সংস্থাগুলোর মতে, নতুন করে আসা শিশুদের অধিকাংশ ভুগছে চরম অপুষ্টিতে। তাতে তাদের সুস্থভাবে বেড়ে ওঠাও এখন শঙ্কার মুখে। এক্ষেত্রে বেশি সমস্যায় নবজাতকরা। কেননা, গেলো কয়েকদিনে জন্ম নিয়েছে শতাধিক শিশু।

এর বাইরে আরেক সমস্যা, চোখের সামনে স্বজনদের নৃশংসতার শিকার হতে দেখেছে অনেক শিশু। পাশাপাশি পালিয়ে আসার পথে ভয়-আতংক মানসিক সমস্যায় ফেলেছে তাদের। তাই এখন তাদের মানসিক সমস্যা কাটাতে দিতে হচ্ছে চিকিৎসা।

বিভিন্ন সংস্থার হিসাবে, গেল কয়েকদিনে পালিয়ে আসাদের মধ্যে এক লাখেরও বেশি শিশু। এখন নানা জায়গায় ছড়িয়ে থাকা এই শিশুদের চিকিৎসা ও অপুষ্টি দূর করতে আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলো উদ্যোগ না নিলে তাদের মধ্যে বিভিন্ন রোগ মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়বে বলে আশঙ্কা সংশ্লিষ্টদের।

PinIt
Top