শিরোনামঃ
রোহিঙ্গাদের ৮৫% শিশুই বিভিন্ন জটিল রোগে আক্রান্তসেই ‘পুলিশের ভিক্ষুক মায়ে’র দায়িত্ব নিতে চান এসআই বশিরআজ শুভ মহালয়া : চণ্ডীপাঠে দেবী দুর্গাকে আবাহনআঞ্চলিক বৈশিষ্ট্যতায় জনস্রোতে মিশে যাচ্ছে রোহিঙ্গারাকোন সতর্কবার্তায় আমরা ভীত নই –সুচিরোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে সহিংসতা বন্ধে ব্রিটেন-ফ্রান্সের আহবানরোহিঙ্গাদের দূদর্শার কারণ আরসা বা আল ইয়াকিনবাংলাদেশকে সংঘর্ষের দিকে নিয়ে যাচ্ছে মিয়ানমাররোহিঙ্গাদের পাশে দাঁড়িয়েছে আমার দেশের মানুষ —প্রধানমন্ত্রীরোহিঙ্গারা পাহাড় কাটায় অপূরণীয় ক্ষতিতে কক্সবাজারদেবী দুর্গার আগমনে ব্যস্ত কক্সবাজারের মৃৎ শিল্পীরাপিতৃপক্ষের অবসানে দেবীপক্ষের শুভ সূচনাজেলা হিন্দু পরিষদের সম্পাদকের মাতার মৃত্যুতে শোকনতুন অফিস বাজারে সাব ইজারাদারদের দৌরাত্ম ॥ প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনাপেকুয়ায় গাঁজাসহ নারী আটক

টেকনাফে আরো ১০রোহিঙ্গার মরদেহ ও স্বর্ণালংকার উদ্ধার

C0XS-PICT-06.09.2017.jpg

ফাইল ছবি

শাহজাহান চৌধুরী শাহীন :
মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে সহিংসতার ঘটনায় বাংলাদেশে পালিয়ে আসার সময় নাফ নদীতে ফের নৌকা ডুবির ঘটনা ঘটেছে। এতে ১০ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। গত মঙ্গলবার রাত ও বুধবার সকালে থেকে টেকনাফের শাহপরী দ্বীপ থেকে শিশু ৩ জন ২ জন নারী ও ৩জন পুরুষ এবং সাবারাং মর্গ পাড়া থেকে আরো ২জন নারীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এসময় তাদের কাজ থেকে সোনার গহনা ও মিয়ানমারের টাকা সহ বিভিন্ন মালামাল পাওয়া যায়।
নৌকা ডুবির খবর পেয়ে সাবরাং মর্গপাড়ায় ছুটে যায় নিখোঁজ দুই রোহিঙ্গা যুবককের মামা মিয়ানমার মংডু পেরাংপুর এলাকার মোঃ ওমর ফারুক।
ওমর ফারুক জানান, গত সোমবার রাতে মিয়ানমারের মংডু মংনি পাড়া ঘাটে বাংলাদেশ থেকে একটি নৌকা গিয়ে তাদেরকে আনতে যায়। এতে আমার দুই ভাগিনা মংডু হারি পাড়া এলাকার মকবুল আহমদের ছেলে মোঃ আয়াজ ও মোঃ খালেদ ও একই এলাকার নজু মিয়ার ছেলে নুর কালাম ওই নৌকাতে ছিল। তবে রাত পেরিয়ে সকালেও পর্যন্ত তাদের কোন খবর পাওয়া যায়নি।
টেকনাফ মডেল থানার ওসি মাইন উদ্দিন খান জানান, গত মঙ্গলবার রাতে ও বুধবার সকালে নাফ নদী থেকে তিন শিশু, তিন পুরুষ ও ৪ নারীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। মৃতদেহ কাজ থেকে টাকা ও সোনার গহনা পাওয়া গেছে সেগুলো আমাদের হেফাজতের রয়েছে। উদ্ধার মৃতদেহ গুলো প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন।
তিনি আরো জানান, সময় তাদের কাজ থেকে সোনার গহনা ও মিয়ানমারের টাকা পাওয়া গেছে, ৮টি হাতের চুরি, ২টি ক্লিপ,২টি সেন্ট, ১টি হাতের ব্যাচলাইট, ৬টি কানেরদুল, ৩টি আনটি, ১০টি লকেটফুল ও ১০হাজারে নোট ১৪টি, ৫হাজার নোট ১২টি, ১হাজারে ২টি, মোট সোনার পরিমান ৯ ভরি ১ আনা, টাকা পরিমান ২ লক্ষ ২ হাজার টাকা পাওয়া যায়।

PinIt
Top